Home সিলেট বিভাগ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে স্কুলে যায় গোয়াইনঘাটের শিক্ষার্থীরা!

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে স্কুলে যায় গোয়াইনঘাটের শিক্ষার্থীরা!

by jonoterdak24
0 comment

 

এইচ.কে.শরীফ সালেহীন::সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ৯নং ডৌবাড়ী ইউনিয়নের লামা লংপুর সহ কয়েকটি গ্রামের সাথে এয়ারপোর্ট-হরিপুর সড়কের সংযোগ।লামা লংপুর গ্রামের কাপনা নদীর ওপর পাকা ব্রিজ না থাকায় দীর্ঘ দিন ধরে ডৌবাড়ী ইউনিয়নের লামা লংপুর গ্রাম সহ কয়েকটি গ্রামের লক্ষাধিক মানুষকে নড়বড়ে ঝুকিপূর্ণ বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার হতে হচ্ছে।এই ঝুঁকিপূর্ন বাশেঁর তৈরি সাকু দিয়ে প্রতিদিন কয়েক হাজার স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসার ছাত্র-ছাত্রীকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াত করতে হয়।প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোট বড় দূঘর্টনা।

গোটা বছর কাপনা নদীতে পানি থাকায় ঝুঁকিপূর্ণ বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার হতে চরম দুর্ভোগে পড়তে হয় এলাকার মানুষকে।সাঁকোর ওপারে স্কুল,কলেজ, মাদ্রাসা এবং হাট-বাজার থাকায় জনগুরুত্বপূর্ন এই সাঁকোর ওপর দিয়ে চলাচল করতে হয়।গ্রামের শত শত সাঁতার না জানা শিক্ষার্থীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাঁকো দিয়ে যাতায়াত করছে।ফলে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে।কিছু দিন আগে স্কুলে যেতে সাঁকো পারারের সময় তিন শিশু সাঁকোতে পরে আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। জরুরি ভিত্তিতে এখানে নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,উপজেলার ৯নং ডৌবাড়ী ইউনিয়ন ও ৬নং ফতেপুর ইউনিয়নের মাঝ দিয়ে বহমান কাপনা
নদী।এই নদী গ্রামীণ জনপদের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে। নদীর বুকে স্থায়ী সেতু নির্মাণ করা হয়নি। ফলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে স্থানীয় পাঁচ থেকে সাত গ্রামের মানুষকে। বেশি দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে, মুমূর্ষু রোগী,স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের এবং শিশুসহ বৃদ্ধদের।অন্যদিকে স্থায়ী সেতু নির্মাণ না হওয়ায় ক্ষতিগস্ত হচ্ছেন কৃষক ও ব্যবসায়ীরা। উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা স্বাধীনতার পর থেকে বার বার সেতু নির্মাণের আশ্বাস দিলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি।মানুষ জীবনের তাগিদে ঝুঁকি নিয়ে নড়বড়ে সাঁকো দিয়ে পার হচ্ছেন। ফলে নীরব ক্ষোভ বিরাজ করছে স্থানীয়দের মাঝে। তারপরেও দুর্ভোগ থেকে মুক্তির জন্য স্থায়ী সেতু নির্মাণের দাবি তাদের।

কাপনা নদীর ওপারে কয়েকটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৪টি মাদ্রাসা,দুটি উচ্চ বিদ্যালয়ও দুটি কলেজ রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের নদীর ওপার থেকে প্রায় আড়াই হাজার ছাত্রছাত্রী লেখাপড়া করে। এসব প্রতিষ্ঠানের বেশির ভাগ শিক্ষার্থী নদীর ওপার থেকে আসে। বর্ষাকালে নদীতে পানি বেশি হলে বাঁশের সাঁকোর ওপর দিয়ে অনেক অভিভাবক ছোট ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠাতে ভয় পায়।

আলীর গাওঁ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ও ৬নং ফতেপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মাস্টার নজরুল ইসালম বলেন নদীর ওপারে অনেক শিক্ষার্থী এই স্কুলে লেখাপড়া করে। এখানে ব্রীজ না হওয়ায় চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হয় শিক্ষার্থীদের।বৃষ্টির দিনে বাঁশের সাঁকো ভিজে পিচ্ছিল হয়ে পড়ে। এতে আহত হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।সেতু নির্মিত হলেই এলাকাবাসীর জন্য যাতায়াতব্যবস্থাসহ ব্যবসা-বাণিজ্যের নতুন নতুন সুযোগের সৃষ্টি হবে।

হাজ্জী মদরিছ আলী উচ্চ বিদ্যলয়ের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ মুছব্বীর আলী বলেন,সেতু না থাকায় এখানকার মানুষ আজ অবহেলিত। সাধারণ মানুষসহ শিক্ষার্থীদের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়। আমার বিদ্যালয়ে ১৫০ জন ছাত্রছাত্রী স্কুলে আসে।অথচ সেতুটি নির্মাণ হলে ভোগান্তি লাগবের পাশাপাশি যোগাযোগ ও অর্থনৈতিক সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচিত হতো।

বাংলা বাজার রহমানিয়া মহিলা টাইটেল মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মাওলানা ফখরুল ইসলাম বলেন,প্রতিদিন ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা এই সাঁকো দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসে।প্রায় সময় সাঁকো পার হতে গিয়ে পানিতে পড়ে যাওয়ার খবর আসে। তাই শিক্ষকরা আতঙ্কে থাকেন।এই ব্রীজটি মানুষের যাতায়াতের খুবই জরুরী। ওই প্রধান শিক্ষক মনে করেন, শিশুদের কথা চিন্তা করে হলেও নদীর ওপর সেতুটি নির্মাণ করা উচিত।

বাংলা বাজার রহমানিয়া মহিলা টাইটেল মাদ্রাসা দাওরায়ে হাদীসে ছাত্রী সুলতানা আক্তার জানায় সাঁকোটা পার হওয়ার সময় জানটা হাতে লইয়া পার হই,কখন যে নিচে পইড়া যাই আল্লাই জানেন।

খেলাফত মজলিসের নেতা মাওলানা দেলোয়ার হোসেন বলেন,স্বাধীনতার পর থেকে এখনো এই নদীর ওপর সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।এলাকার শত শত শিক্ষার্থী লেখাপড়া করে। এখানে সেতু না হওয়ায় চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হয় শিক্ষার্থীদের। বৃষ্টির দিনে বাঁশের সাঁকো ভিজে পিচ্ছিল হয়ে পড়ে। এতে আহত হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। ভয়ে বেশ কিছু ছাত্রী নিয়মিত বিদ্যালয়ে যায় না। এমনকি ছাত্রীরা বাঁশের সাঁকো পারাপারের ভয়ে অনেক ছাত্রছাত্রী লেখা পড়া বন্ধ হচ্ছে।

Related Posts

Leave a Comment


cheap jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap jerseys from chinacheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap mlb jerseyscheap nfl jerseys