Home সারাদেশ দীপাবলীতে যশোরে আলোক উৎসব

দীপাবলীতে যশোরে আলোক উৎসব

by jonoterdak24
0 comment

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

রোববার দিপান্বিতা অমাবস্যা তিথির গভীররাতে আনুষঙ্গিক মাঙ্গলিক ধর্মীয় আচারানুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বাঙালি সনাতন ধর্মবিশ্বাসীদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান শ্রীশ্রী শ্যামাপূজা সম্পন্ন হয়েছে। একইসাথে অনুষ্ঠিত হয় অলক্ষ্মীপূজা শেষে শ্রীশ্রী লক্ষ্মীপূজা। এছাড়া অমাবস্যার এ তিথিতে যশোরে দীপাবলী বা দীপদান তথা আলোক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অশুভ শক্তির বিনাশ করে শুভ শক্তির আনয়নে ভক্তবৃন্দ এ মহাশক্তির বন্দনা করা হয়। ভক্তদের বিশ্বাস মহাশক্তির আরাধনায় সকল অশুভ শক্তির বিনাশ হয়ে অন্ধকার থেকে আলোর পথ সুগম হয়। শাস্ত্রীয় মতে, ভূতচতুর্দশীর পর অমাবস্যার পূর্ণতিথিতে গভীররাতে উৎসাহ-উদ্দিপনায় ধর্মীয় আচারানুষ্ঠানে সারা দেশের সাথে যশোরেও অনুষ্ঠিত হয় এ মহাশক্তির বন্দনা।

এদিন সন্ধ্যায় যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজ ক্যাম্পাসে আলোক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ মাইকেল মধুসূদন কলেজ শাখার উদ্যোগে মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্বালনের মধ্য দিয়ে এ উৎসবের উদ্বোধন করেন যশোর রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশনের উপাধ্যক্ষ আত্মবিভানন্দ মহারাজ। এরপর ১০৮টি প্রদীপ ও ১ হাজার ৮টি মোমবাতি প্রজ্বালনের মাধ্যমে আলোকিত করা হয় কলেজ প্রাঙ্গণ।

আলোক উৎসবে উপস্থিত ছিলেন সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজ শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মহীউদ্দীন, সিটি কলেজ উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক অলোক বসু, সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজের গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক প্রদীপ দেবনাথ, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক অমলেন্দু বিশ্বাস, ভূগোল বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নিতীশ চন্দ্র কর্মকার, বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মহুয়া রায়, অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক মাম্পী রানী সিংহ, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রওশন ইকবাল শাহী, সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ যশোরের প্রধান সমন্বয়ক বিজন চৌধুরী, সমন্বয়ক আশীষ বিশ্বাস, বিশ্বজিৎ মজুমদার, সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ মাইকেল মধুসূদন কলেজ শাখার সভাপতি অভিজিৎ চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক সত্যজিৎ মজুমদার প্রমুখ।

যশোর পৌর এলাকায় উৎসবমুখর পরিবেশে ব্যতিক্রমী মন্দির-ম-পে পূজাপ্রাঙ্গণমুখী দর্শনার্থী ও ভক্তবৃন্দের উপচে পড়া ভিড় ছিল লক্ষণীয়। সার্বজনীন ও ব্যক্তি উদ্যোগে বিভিন্ন বাসা-বাড়ি ছাড়াও যশোর শহরে শতাধিক দৃষ্টিনন্দন পূজামন্দির ও ম-পে এবার পূজা উদযাপন হয়েছে। রোববার সন্ধ্যার পর প্রতিটা পূজামন্দির-ম-পে শ্রীশ্রী শ্যামা বিগ্রহ প্রতিষ্ঠা করা হয়। বিগ্রহ স্থাপনের পর আনুষঙ্গিক সকল প্রস্তুতি সম্পন্নের পর গভীর রাতে পূজা শুরু হয়ে সূর্যোদয়ের আগে পূজা সম্পন্ন হয়। এরপর  সোমবার সকালে ভক্তবৃন্দের মাঝে প্রসাদ বিতরণ করা হয়।

এদিকে যশোর পৌর এলাকায় এবারও শতাধিক মন্দির ও ম-পে দীপাবলী উৎসব ও শ্রীশ্রী শ্যামাপূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদের মধ্যে রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশন, নীলগঞ্জ মহাশ্মশান মন্দির, সিদ্ধেশ্বরী কালীমন্দির, মুড়লী জোড়া মন্দির, বেজপাড়া পূজা সমিতি মন্দির, পুরনো কালীবাড়ী মন্দির, মাড়–য়া মন্দির, শ্রীধর পুকুরপাড় ম-প, সুধীর ঘোষের কাঠগোলাস্থ মন্দির, গয়ারাম রোডের মন্দির-ম-প, চুড়িপট্টী, বারান্দীপাড়া, রাঙামাটি গ্যরেজ, সিটি কলেজপাড়া, নীলগঞ্জ সুপারী বাগান, হরিজন পল্লি, নিউ বেজপাড়া পূজাম-প, বেজপাড়া বয়েজ ক্লাব ম-প, বেজপাড়া টিবি ক্লিনিক সার্বজনীন পূজা কমিটি বাগমারাপাড়া পূজাম-প, ষষ্টিতলাপাড়া পূজামন্দির, নীলগঞ্জ সাহাপাড়া মন্দির, ভেকুটিয়া সার্বজনীন কালীমন্দির, রেলরোড, চারখামার মোড় উল্লেখযোগ্য।

দীপাবলী উৎসব ও শ্রীশ্রী শ্যামাপূজা যশোরে আয়োজনের ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতায় বরাবরের মতো এবারও ব্যতিক্রমী সব আয়োজন করা হয়েছে। শ্রীশ্রী শ্যামাপূজায় প্রতিমা নির্মাণ শৈলী, সুদৃশ্য ম-প, তোরণ নির্মাণ ও আলোকসজ্জায় এক নতুন মাত্রা এসেছে। কারুকার্যময় ম-প নির্মাণে এবারও চমকপ্রদ থিম সংযোজন করা হয়েছে। এছাড়া এবারও প্রতিমা নির্মাণ শৈলী, সুদৃশ্য ম-প, তোরণ নির্মাণ ও উন্নত আলোকসজ্জায় বিমোহিত হয়ে যশোর ছাড়াও অন্যান্য জেলা থেকে দর্শনার্থী ও ভক্তবৃন্দে বিমোহিত করবে বলে জানিয়েছেন বিভিন্ন আয়োজকবৃন্দ।

 

Related Posts

Leave a Comment


cheap jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap jerseys from chinacheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap mlb jerseyscheap nfl jerseys