Home সারাদেশ বড়গাং ও কাটাগং খননের দাবিতে অবস্থান

বড়গাং ও কাটাগং খননের দাবিতে অবস্থান

by jonoterdak24
0 comment

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি, বৃহস্পতিবার, ১৭ মার্চ ২০১৬ :: চারিদিকি বালুরাশি। চৈত্রের খরতাপ সে বালুরাশিকে করে তুলেছে আরো বেশি তপ্ত। আপাত দৃষ্টিতে বুঝার উপায় নেই যে বাংলার ‘নীল নদ’ খ্যাত সারী নদী হতে সৃষ্ট একটি শাখা নদীর অংশ। সিলেটের জৈন্তাপুরে বড়গাং ও কাটাগাং নামক দুটি নদীর বর্তমানে এমন অবস্থা যে দেখলে মনে হয় এ যেন এক মরুময় বালুর মাঠ। বর্ষার শেষ হতে না হতেই মধ্যে নদীর পানি শুকিয়ে যায়। গত ২ বছর সেখান থেকে বালু উত্তোলন বন্ধ থাকায় বড়গাং ও কাটাগাং এখন নিশ্চিহ্ন হওয়ার পথে।

বড়গাং, কাটাগাং ও সারী নদীর স্বচ্ছ জলধারা স্বাভাবিকতা ও নাব্যতা ফিরে আনার জন্য নদীগুলো খননের দাবিতে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় বড়গাং নদীর মোহনায় অবস্থান কর্মসূচী পালন করা হয়। আন্তজার্তিক নদীকৃত্য দিবস উপলক্ষে সারি নদী বাঁচাও আন্দোলনের আয়োজনে ‘হাঁটতে আসিনে, সাঁতারের দাবি নিয়ে এসেছি’ স্লোগানে অনুষ্ঠিত এ কর্মসূচীতে অংশ নেন একদল সচেতন মানুষ। কাজ ফেলে তাদেও সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন শ্রমিক, মাঝি, চালকসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার লোকজন।

উপস্থিত সবার মুখে স্লোগান ওঠে- ‘হাঁটতে আসিনি, সাঁতারের দাবি নিয়ে এসেছি।’

নিশ্চিন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুর উদ্দিন মাষ্টারেরসভাপতিত্বে ও সারি নদী বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি আব্দুল হাই আল হাদীর পরিচালনায় অবস্থান কর্মসূচীতে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সংগঠক ডাক্তার তায়েফ আহমদ, সীমান্ত মিডিয়া লাইন এন্ড একাডেমীর পরিচালক সাংবাদিক আবুল হোসেন মোঃ হানিফ, সীমান্ত মিডিয়া লাইন এন্ড একাডেমীর আঞ্চলিক পরিচালক সাংবাদিক রেজওয়ান করিম সাব্বির, সামজসেবী শামীম আহমদ, সমাজসেবী শাহআলম চৌধুরী তোফায়েল, ইউপি সদস্য আজির উদ্দিন, সাবেক মহিলা ইউপি সদস্য অর্চনা রানী বিশ্বাস, বালতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক নজির আহমদ, ইমরান আহমদ প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, সরকার নদী ও জৈব বৈচিত্র ধরে রাখেতে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের মাধ্যমে অভিলম্বে নদী দুটি খননের আওতায় নিয়ে আসবে বলে সবার বিশ্বাস। তারা বলেন, সারী নদী হতে সৃষ্ট দুটি শাখা কাটাগাং নদীর পুরো অংশ এবং বড়গাং নদীর প্রায় ১০ কিলোমিটার অংশ শুকিয়ে গেছে। পানি না থাকার ফলে জনজীবনও সমস্যার সম্মুখিন হচ্ছে। 333

Related Posts

Leave a Comment


cheap jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap jerseys from chinacheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap mlb jerseyscheap nfl jerseys