Home অপরাধ রায়পুরে নারী ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম, থানায় মামলা

রায়পুরে নারী ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম, থানায় মামলা

by jonoterdak24
0 comment

রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি ।। 

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মহিমা আক্তার (৩৯) নামে এক নারী ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় তার ছেলে হাসানুর রহমান বাদি হয়ে শনিবার (৫ মে) রাতে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

জানা যায়, রায়পুর উপজেলার বামনী ইউনিয়নে শিবপুর গ্রামে গত ৪ মে (শুক্রবার) জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এলাকার দু’পক্ষের মারামারির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে নারী ইউপি সদস্য মহিমা আক্তার ঘটনাস্থল গেলে এ হামলার শিকার হন।

আহত মহিমা উপজেলার বামনী ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য। তিনি নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রায়পুর থানা পুলিশ জানান, উপজেলার বামনী ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর কবির ও হুমায়ুনদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। এনিয়ে আদালতে মামলাও বিচারাধীন। শনিবার জাহাঙ্গীর তার লোকজন নিয়ে হুমায়ুনের দখলে থাকা বাগানে ঢুকে গাছ কেটে ফেলে। এসময় বাগানের চারপাশের তারের ভেড়া ভেঙ্গে দেয়। বিষয়টি হুমায়ুন থানায় অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। খবর পেয়ে ইউপি সদস্য মহিমা আক্তারও সেখানে যান। ঘটনার সময় জাহাঙ্গীর তার লোকজনকে নিয়ে হুমায়ুনের ওপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে মহিমা আক্তারের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করা হয়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে নোয়াখালী হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীর কবির, মুকবুল ও রাজুসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলার বাদি হাসানুর রহমান বলেন, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এলাকার দু’পক্ষের মারামারির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে আমার মা ঘটনাস্থলে গেলে কিছু বুঝে উঠার আগেই জাহাঙ্গীরের লোকজন হামলা করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও রায়পুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ ময়নাল হোসেন খাঁন বলেন, ইউপি সদস্যের ওপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ মামলার আসামিদের গ্রেফতার করতে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Related Posts

Leave a Comment