Home শিক্ষা সিলেটের জৈন্তাপুরে শতকোটি টাকায় নির্মিত হচ্ছে বোর্ডিং স্কুল

সিলেটের জৈন্তাপুরে শতকোটি টাকায় নির্মিত হচ্ছে বোর্ডিং স্কুল

by jonoterdak24
0 comment

 

 

জসিম উদ্দিন  :: সিলেটের জৈন্তাপুরে শতকোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাফলং ভ্যালি বোর্ডিং স্কুল। জৈন্তাপুরের শ্রীপুরে প্রকৃতির ছায়াঘেরা পরিবেশে প্রায় সাড়ে তিনশ’ একর জায়গাজুড়ে নির্মিত হচ্ছে এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। আগামী বছরে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির মাধ্যমে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরুর আশা প্রকাশ করেছেন উদ্যোক্তারা।

উদ্যোক্তারা জানান, দেশের অনেক ছেলেরাই বিদেশে গিয়ে পড়ালেখা করে। পাশ্ববর্তী দেশ ভারতে গিয়েও পড়ে অনেকে। এতে দেশের অর্থ যেমন বিদেশে চলে যাচ্ছে অপরদিকে, অনেক বেশি টাকা ব্যয় করতে হচ্ছে অভিভাবদের। এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু হলে বিদেশ গিয়ে পড়ার প্রবণতা কমবে বলে আশা করছেন সংশ্লিস্টরা। এছাড়া বিদেশ থেকেও  শিক্ষার্থীরা এখানে আসবে বলে আশা তাদের। জাফলং ভ্যালি বোর্ডিং স্কুলে তুলনামুলক কম টাকায় পড়ালেখা করা যাবে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

উদ্যোক্তারা জানান, ক্যাডেট কলেজের আদলে গড়ে ওঠা প্রতিষ্ঠানে ৬ষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত পড়ানো হবে। সম্পূর্ণ আবাসিক এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসন সংখ্যা হবে এক হাজার। জাতীয় ও বৃটিশ ক্যারিকুলাম অনুযায়ী এখানে শিক্ষা প্রদান করা হবে।

সরেজমিনে জৈন্তাপুরে গিয়ে দেখা যায়, চারদিকে পাহাড়-টিলা বেষ্টিত শ্রীপুরে জাফলং ভ্যালি বোর্ডিং স্কুলের নির্মান কাজ চলছে। ইতোমধ্যে একাডেমিক ভবন, তিনটি ডরমেটরি এবং অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষের বাংলো নির্মান করা হয়েছে।

জাফলং ভ্যালি বোডিং স্কুলের চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন পূবালী ব্যাংকের সাবে চেয়ারম্যান ও সাবেক সাংসদ হাফিজ আহমদ মজুমদার। এছাড়া উদ্যোক্তাদের মধ্যে রয়েছেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্ঠা ও স্কয়ার গ্রুপের চেয়ারম্যান তপন চৌধুরী, এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি ও হা-মীম গ্রুপের চেয়ারম্যান একে আজাদ, ওপেক্স গ্রুপ ও সিনহা টেক্সটাইল গ্রুপের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান সিনহা, বাংলাদেশ চা সংসদের সাবেক সভাপতি সাফওয়ান চৌধুরী, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. কবীর চৌধুরী, লোকমান উদ্দিন চৌধুরী প্রমূখ।

জাফলং ভ্যালি বোর্ডিং স্কুলের উদ্যোক্তা লোকমান উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আমাদের দেশের অনেক ছেলে ভালো মানের শিক্ষার জন্য দেশের বাইরে গিয়ে পড়ালেখা করে। ভারত-নেপালেও অনেকে পড়ালেখা করতে যায়। এতে তাদের বছরে খরচ হয় প্রায় আট লাখ টাকা। অথচ আমাদের এখানে বছরে আনুমানিক ৩ লাখ টাকার মতো খরচ হবে। এতে একদিকে যেমন দেশের অর্থ দেশেই থাকবে অন্যদিকে অভিভাবকরাও স্বল্প খরচে তাদের সন্তানদের উন্নত শিক্ষা প্রদান করার সুযোগ পাবেন।

এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষসহ কয়েকজন শিক্ষককে দেশের বাইরে থেকে নিয়ে আসা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, এখন দেশের তিনটি ক্যাডেট কলেজের তিনজন সাবেক অধ্যক্ষ প্রতিষ্ঠানটির প্রকল্প পরিচালকের দায়িত্বে রয়েছেন।

এ প্রতিষ্ঠানে কেবল ছেলেরাই ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবেন বলে জানিয়ে লোকমান উদ্দিন বলেন, প্রকৃতির সঙ্গে ও কোলাহল মুক্ত পরিবেশে যাতে শিক্ষার্থীরা বেড়ে উঠতে পারে এটি বিবেচনা করে শ্রীপুরের মতো একটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমন্ডিত এলাকার এই স্কুলটি নির্মান করা হচ্ছে।

নির্মিতব্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমদ মজুমদার বলেন, আমাদের দেশে উন্নতমানের বোর্ডিং স্কুল এখনও হয়ে ওঠেনি। বোর্ডিং স্কুলে যেসব ছেলেমেয়ে পড়াশোনা করে শিক্ষিত হয়, বিদেশেসহ সব জায়গায় তারাই পরে নেতৃত্বে আসে। আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা দেওয়াই আমাদের উদ্দেশ্য। যাতে আমাদের দেশের তরুণরা আন্তর্জাতিক নাগরিক হয়ে ওঠতে পারে।

তিনি বলেন, প্রচুর টাকা খরচ করে যেসব ছেলেমেয়ে বিদেশে পড়াশোনা করতে যাচ্ছে, তারা জাফলং ভ্যালি বোর্ডিং স্কুলে এর অর্ধেক টাকা খরচে একই মানের পড়াশোনার সুযোগ পাবে।

ভালো মান বজায় রাখতে পারলে পাশ্ববর্তী দেশগুলো থেকেও শিক্ষার্থীরা এসে এখানে ভর্তি হবে বলে আশা হাফিজ আহমদ মজুমদারের।

Related Posts

Leave a Comment


cheap jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap jerseys from chinacheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap mlb jerseyscheap nfl jerseys