Home রাজনীতি সিলেটে ওয়ান ইলেভেনের দুই মামলায় হারিছ চৌধুরীসহ ৫ জনের খালাস

সিলেটে ওয়ান ইলেভেনের দুই মামলায় হারিছ চৌধুরীসহ ৫ জনের খালাস

by jonoterdak24
0 comment

মোঃ জসিম উদ্দিন,জনতার ডাক :adalotসাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে সিলেটে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুর করে লুটপাটের অভিযোগে করা মামলার রায়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী সহ পাঁচ আসামিকে খালাস দিয়েছেন আদালত। একজনকে ১০ মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।
সিলেটের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আবু ওবাইদা মঙ্গলবার এ রায় দেন। দন্ড পাওয়া আসামি হচ্ছেন, কানাইঘাটের বাসিন্দা আহমদ সোলাইমান। তাঁকে ১০ মাসের কারাদন্ড ছাড়াও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, আনাদায়ে আরও এক মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়। তিনি বর্তমানে জামিনে রয়েছেন। খালাস পেয়েছেন হারিছ চৌধুরী সহ তাঁর চাচাত ভাই কানাইঘাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরী, বিএনপি কর্মী আহমদ মস্তোফা, আলতাফ উদ্দিন ও মামুনুর রশিদ। আদালতে মামলা সূত্রে জানা যায়, বিগত চারদলীয় জোট ক্ষমতায় থাকাকালে কানাইঘাটের লোভাছড়ার কামদানা এলাকায় ব্যবসায়ী আজির উদ্দিনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দুই দফা হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট হয়। ২০০৬ সালের ২৬ আগষ্ট প্রথম দফা হামলায় দেড় লাখ টাকা ও ২ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় দফা হামলা করে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা লুটপাট হয়। রাজনৈতিক প্রভাবে এ হামলা হওয়ায় ২০০৭ সালে তত্ত তত্ত্বাবধায়ক সরকার ক্ষমতাসীন হলে আজির উদ্দিন ১৩ এপ্রিল এ ঘটনায় মামলা করেন। ওই বছরের ৫ আগষ্ট কানাইঘাট থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোপাল চক্রবর্তী মামলার তদন্ত করে হারিছ চৌধুরী সহ ছয়জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগ পত্র (চার্জশিট, নম্বর ৮৯) দাখিল করেন। ২০০৮ সালের ৭ এপ্রিল আদালতে অভিযোগ গঠন হয়। মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) খোকন কুমার দত্ত সাংবাদিকদের জানান, মামলার মোট ১৮ সাক্ষীর মধ্যে ১৩ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালতে এ রায় দেন। হারিছ চৌধুরীর বাড়ি সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার দিঘিরপাড় পূর্ব ইউনিয়নের দর্পনগর গ্রামে। বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমল থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন। রায়ের প্রতিক্রিয়া জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে আশিক চৌধুরী বলেন, ‘আমি আদালতে ছিলাম না, শুনেছি। এ মামলাটি আসলে তৎকালীন সময়ে রাজনৈতিক ভাবে হয়রানি করতেই বাদীকে প্ররোচিত করে দায়ের করা হয়েছিল। রায়ে আমরা ন্যায় বিচার পেয়েছি।’ তবে মামলার বাদী আজির উদ্দিনের দাবি, তিনি প্ররোচিত নয়, ক্ষমতার দাপটে সংঘটিত একটি ঘটনার বিচার প্রার্থী হয়েছিলেন। অভিযুক্ত একজনের সাজা আর বাকিরা খালাস পাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি রায়ের কপি উত্তোলন করে এ ব্যাপারে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করব

Related Posts

Leave a Comment


cheap jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap jerseys from chinacheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap nfl jerseyscheap mlb jerseyscheap nfl jerseys