Home অপরাধ স্বামীর ঘরে ফিরতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার দুই সন্তানের মা

স্বামীর ঘরে ফিরতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার দুই সন্তানের মা

by Chief Editor
0 comment 63 views

অনলাইন ডেস্ক

পুনরায় স্বামীর ঘরে ফিরতে চেয়েছিলেন দুই সন্তানের জননী এক নারী। দু’জনের সম্মতিতে নোটারী পাবলিকে তারা বিয়েও করেন। কিন্তু স্বামীর ঘরে প্রবেশ করলে গ্রামের লোকজন অবৈধ স্ত্রীর অপবাদ দিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয়। তাকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দিতে স্থানীয় বাসিন্দা সাগর (১৮) ও আমির হোসেনকে (২৭) দায়িত্ব দেয়া হয়। কিন্তু বাড়িতে পৌঁছে না দিয়ে নির্জন এলাকায় নিয়ে উপর্যুপরি তাকে ধর্ষণ করে ওই দুই যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে বান্দরবানের লামা পৌরসভা এলাকায়। ধর্ষণের শিকার ওই নারী ও তার পরিবারের লোকজন মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩ টায় লামা থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ দিলে রাতেই অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করে পুলিশ।

ওই নারীর ভাষ্যমতে, মঙ্গলবার রাত ৯টায় লামা পৌরসভার মধুঝিরিস্থ তার স্বামীর বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে দুই যুবক।

তারা হলেন- লামা পৌরসভার মধুঝিরি এলাকার বাসিন্দা মৃত জালাল আহাম্মদের ছেলে মো. সাগর ও পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ড কুড়ালিয়া টেক এলাকার মো. সিরাজ মিয়ার ছেলে আমির হোসেন।

লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ভিকটিম ও অভিযুক্তরা থানা হেফাজতে আছে।

ভিকটিমের বড় ভাই জানান, দেড় বছর আগে আমার বোন ও তার স্বামীর মধ্যে ছাড়াছাড়ি (তালাক) হলে আরেকজনের সঙ্গে বিবাহ হয়। প্রায় ৭ মাস আগে দুই সন্তানের কথা ভেবে আমার বোন দ্বিতীয় স্বামীকে ছেড়ে আমাদের বাড়িতে চলে আসে। আর বিদেশ থাকা বোনের প্রথম স্বামী কয়েকদিন আগে এসে আমার বোনকে তার স্ত্রী হিসেবে আবারও নিতে আগ্রহ প্রকাশ করে। দু’জনের সম্মতিতে তারা পুনরায় নোটারী পাবলিকে বিবাহ করে। মঙ্গলবার সে তার স্বামীর ঘরে যায়। স্বামীর ঘরে গেলে সেখানে আশপাশের স্থানীয় লোকজন আমার বোনকে স্বামীর অবৈধ স্ত্রী দাবি করে তাকে ঘর থেকে বের করে দেয়। উপস্থিত সকলে আমার বোনকে আমাদের বাড়িতে পাঠানোর জন্য সাগর ও আমির হোসেনকে দায়িত্ব দেয়। তারা বোনকে আমাদের বাড়িতে পৌঁছে না দিয়ে পৌরসভার সাবেক বিলছড়ি এলাকায় নিয়ে রাত ১০টার দিকে ধর্ষণ করে। খবর পেয়ে আমরা তাকে রাত ২টায় উদ্ধার করে থানা নিয়ে যায়। ভিকটিমের ভাষ্যগ্রহণ করে পুলিশ রাতেই দুই জনকে আটক করে থানা নিয়ে আসে।

পৌরসভার মধুঝিরি এলাকার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কামাল উদ্দিন বলেন, দু’দিন আগে ভিকটিমের স্বামী তার স্ত্রীকে পুনরায় সংসারে নিয়ে আসার কথা আমাকে জানায়। আমি মঙ্গলবার ব্যক্তিগত কাজে বান্দরবান গিয়েছিলাম। সেখান থেকে এসে পরে সামাজিকভাবে বিষয়টি নিয়ে বসার কথা ছিল। তার আগেই মেয়েটি মঙ্গলবার নিজের মন মত স্বামীর ঘরে আসায় সামাজের লোকজন বাধ সাজে এবং এই ঘটনার সৃষ্টি হয়।

Related Posts

Leave a Comment